রাশেদুল ইসলাম: ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চার লেনের কাজ প্রতিনিয়ত এগুচ্ছে সামনের দিকে। একই সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মানুষের ভোগান্তিও। মহাসড়ক ব্যাবহারকারীরা প্রতিনিয়ত যানজটের শিকার হহওয়ার পাশাপাশি আশপাশের এলাকা গুলোতে বাড়ছে লোডশেডিং । স্থানীয়রা কারন হিসাবে মহাসড়কের পাশের বিদ্যুতের খুঁটি গুলো স্থানান্তরকেই দেখছেন।

biddut

ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য গাজিপুর টাইমসের প্রতিনিধি সরেজমিনে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে আসে। স্থানীয়রা জানায়, বর্তমানে এই মহাসড়কের পাশের এলাকা গুলোতে দুর্ভোগের অপর নাম লোডশেডিং। এটি বর্তমানে এলাকাবাসীর কাছে এর মহামারি স্বরূপ।

মহাসড়কের যানজট

মহাসড়কের যানজট (ছবিঃ রাশেদুল ইসলাম)

মহাসড়কের উন্নয়ন কাজের জন্য সড়কের পার্শ্ববর্তী বিদ্যুতের খুঁটি গুলো স্থানান্তর করা হচ্ছে। যার ফলে মহাসড়কের পার্শ্ববর্তী নাওজোড়, কড্ডা, বাইমাইল, কোনাবাড়ী এলাকা গুলোতে প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত থাকছেনা বিদ্যুৎ। একদিকে বাড়ছে মানুষের ভোগান্তি, অন্যদিকে ব্যাহত হচ্ছে ব্যাবসা-বানিজ্য ও দৈনন্দিন কাজ।

বাইমাইল এলাকার শিক্ষার্থী কানিজ ফারহানা কথিকা গাজিপুর টাইমসকে জানান, “ সকাল ১০টা থেকে রাত ৭টা ৮টা পর্যন্ত প্রতিদিনই থাকছেনা বিদ্যুৎ, বাসার দৈনন্দিন কাজ ব্যাহত হচ্ছে, পাশাপাশি অসহ্য গরমে নানা রকম অসুখে আক্রান্ত হচ্ছে বাসার লোকজন। এছাড়া স্থানীয় বাসিন্দারা এই অবস্থা থেকে দ্রুত পরিত্রানে কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

জিটি/০৩/১০/১৬/০০৭

Share.

Comments are closed.